অক্টো. 282013
 

আবদুল আযীয ইবন আবদুল্লাহ উয়াযসী (রহঃ) আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, রাসূল (সাঃ) বলেছেন, যে ব্যাক্তি মানুষের মাল (ধার) নেয় পরিশোধ করার উদ্দেশ্যে আল্লাহ তা’আলা তা আদায়ের ব্যবস্থা করে দেন। আর যে তা নেয় বিনষ্ট করার নিয়্যাতে আল্লাহ তা’আলা তাকে ধ্বংস করেন।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ ঋন গ্রহন হাদিস নাম্বারঃ ২২২৯

অক্টো. 162013
 

মুহাম্মদ ইবন বাশ্শার (রঃ) ইবন আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, নবী (সাঃ) একবার এক জমিতে গেলেন, যার ফসলগুলো আন্দোলিত হচ্ছিল। তিনি জানতে চাইলেন, কার (ফসলের) জমি? লোকেরা বল্ল, (অমুক ব্যাক্তির কাছে থেকে) অমুক ব্যাক্তি এটি ইজারা নিয়েছে। তিনি বললেন, জমিটার নির্দিষ্ট ভাড়া গ্রহন না করে সে যদি তাকে সাময়িকভাবে তা দিয়ে দিত তবে সেটাই হতো তার জন্য উত্তম।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ হিবা (উপহার) প্রদান হাদিস নাম্বারঃ ২৪৫৮

অক্টো. 162013
 

আবূ ন’আইম (রঃ) আয়মান (রঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আয়িশা (রাঃ) এর নিকট আমি হাযির হলাম। তার গায়ে তখন পাঁচ দিরহাম মূল্যের মোটা কাপড়ের কমিজ ছিল। তিনি আমাকে বললেন, আমার এ বাদীটার দিকে চোখ তুলে একটু তাকাও, ঘরের ভিতরে এটা পরতে সে অপছন্দ করে। অথচ রাসূল (সাঃ) এর যামানায় মদীনায় মেয়েদের মধ্যে আমারই শুধু একটি কামিজ ছিল। মদীনায় কোন মেয়েকে বিয়ের সাজে সাজাতে গেলেই আমার কাছে কাউকে পাঠিয়ে ঐ কামিজটি চেয়ে নিত (সাময়িক ব্যবহারের জন্য)।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ হিবা (উপহার) প্রদান হাদিস নাম্বারঃ ২৪৫২

অক্টো. 162013
 

আদম (রঃ) কাতাদা (রঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আনাস (রাঃ) কে বলতে শুনেছি, মদীনায় একবার শত্রর আক্রমনের ভয় ছড়িয়ে পড়ল। নবী (সাঃ) তখন আবূ তালহা (রাঃ) এর কাছ থেকে একটি ঘোড়া ধার নিলেন এবং তাতে সাওয়ার হলেন। ঘোড়াটির নাম ছিল মানূদব। তারপর (মদীনা টহল দিয়ে) ফিরে এসে তিনি বললেন, কিছুই তো দেখতে পেলাম না, তবে এই ঘোড়াটিকে আমি সমূদ্রের তরঙ্গের মত পেয়েছি।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ হিবা (উপহার) প্রদান হাদিস নাম্বারঃ ২৪৫১