নভে. 172013
 

কুতাইবা ইবনু সাঈদ (রহঃ) আবূ মূসাশারী (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন, তোমরা বন্দীকে মুক্ত কর, ক্ষুধারর্তকে আহার দান কর এবং রোগীর সেবা-শুশ্রুষা কর।

গ্রন্থঃ সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ জিহাদ হাদিস নাম্বারঃ ২৮৩২

নভে. 062013
 

মুহাম্মদ ইবন কাসীর (রহঃ) আবূ মুসা আশআরী (রাঃ) থেকে বর্নিত যে নাবী (সাঃ) বলেছেনঃ তোমরা ক্ষুদার্থকে আহার করাও, রোগীর পরিচর্যা করো এবং বন্দীকে মুক্ত করো। সুফিয়ান বলেছেনঃ ‘অলআনি’ অর্থঃ বন্দী।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ আহার সংক্রান্ত হাদিস নাম্বারঃ ৪৯৮২

নভে. 062013
 

সুলায়মান ইবন হারব (রহঃ) বারা ইবন আযিব (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ নাবী (সাঃ) আমাদের সাতটি কাজের আদেশ দিয়েছেন এবং সাতটি কাজ থেকে নিষেধ করেছেন। রোগীর দেখাশোনা করতে, জানাযার সঙ্গে যেতে, হাচিদাতার জবাব দিতে, দাওয়াত গ্রহণ করতে, সালামের জবাব দিতে, মানূষের সাহায্য করতে এবং কসম পূরা করতে আমাদের আদেশ দিয়েছেন। আর সোনার আংটি অথবা বালা ব্যবহার করতে, সাধারণ রেশমী কাপড় পরতে, মিহিন রেশমী কাপড়, রেশমী যিন ব্যবহার করতে, কাসীই ব্যবহার করতে এবং রৌপ্য পাত্র ব্যবহার করতে আমাদের নিষেধ করেছেন।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ আচার ব্যবহার হাদিস নাম্বারঃ ৫৭৮৯

নভে. 012013
 

আদাম (রহঃ) বারা ইবন আযিব (রাঃ) থেকে বর্ণিত। বলেন, নাবী (সাঃ) আমাদের সাতটি জিনিস থের্কে নিষেধ করেছেন: স্বর্ণের আংটি বা তিনি বলেছেন। স্বর্নের বলয়, মিহি রেশম, মোটা রেশম ও রেশম মিশ্রিত কাপড় রেশম এর তৈরী লাল রঙের পেলান বা হাওদা, রেশম মিশ্রিত কিসসী কাপড় ও রুপার পাত্র আর আমাদের সাতটি কাজের আদেশ করেছেনঃ রোগীর শশ্রুষা, জানাযার পেছনে চলা, হাচির উত্তর দেওয়া, সালামের জবাব দেওয়া, দাওয়াত, গ্রহন করা, কসমকারীর কসম পূরনে সাহায্য করা এবং মাযলূম ব্যাক্তির সাহায্য করা।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ পোষাক-পরিচ্ছদ হাদিস নাম্বারঃ ৫৪৪৪

অক্টো. 242013
 

হাফস ইবন উমর (রহঃ) বারা ইবন আযিব (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ (সাঃ) আমাদের সাতটি জিনিসের আদেশ দিয়েছেন এবং সাতটি বিষয়ে নিষেধ করেছেন। তিনি আামাদের নিষেধ করেছেনঃ সোনার আংটি, মোটা ও পাতলা এবং কারুকার্য খচিত রেশমী কাপড় ব্যাবহার-করতে এবং কাসূসী ও মিয়নারা কাপড় ব্যবহার করতে। আর তিনি আমাদের আদেশ করেছেনঃ আমরা যেন জানাযার অনুসরন করি, রোগীর সেবা করি এবং বেশী বেশী করে সালাম করি।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ রোগীদের বর্ণনা হাদিস নাম্বারঃ ৫২৪৭

অক্টো. 242013
 

কুতায়বা ইবন সাঈদ (রহঃ) আবূ মুসা আশাআরী (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেনঃ তোমরা ক্ষুধার্তকে খাবার দাও, রোগীর সেবা কর এবং কয়েদীকে মুক্ত কর।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ রোগীদের বর্ণনা হাদিস নাম্বারঃ ৫২৪৬

অক্টো. 242013
 

ইবন ইসমাঈল (রহঃ) বারা ইবন আযিব (রাঃ) থেকে বর্নিত। তিনি বলেন- রাসুলুল্লাহ (সাঃ) আমাদের সাতটি জিনিসের হুকুম দিয়েছেন এবং সাতটি জিনিস থেকে নিষেধ করেছেন। তিনি আমাদের হুকুম দিয়েছেনঃ রোগীর সেবা করতে, জানাযার পেছনে যেতে, তিনি দানকারীর জবাব দিতে দাওয়াতকারীর দাওয়াত গ্রহন করতে বেশী বেশী সালাম দিতে, মাযলুমের সাহায্য করতে এবং কসম ঠিক রাখার সুযোগ কবে দিতে। আর আমাদের তিনি নিষেধ করেছেন: স্বর্ণের আংটি ব্যবহার করতে, কিংবা তিনি বলেছেন রুপার পাত্রে পানি পান করতে মায়াসির অর্থাৎ এক জাতীয় নরম ও মসৃণ রেশমী কাপড় কাসসী অর্থাৎ রেশম মিশ্রিত কাপড় ব্যবহার করতে এবং পাতলা কিংবা মোটা এবং অলংকার খচিত রেশমী কাপড় ব্যবহার করতে।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ পানীয় দ্রব্যসমূহ হাদিস নাম্বারঃ ৫২৩৩

অক্টো. 182013
 

হাসান ইবন রবী (রহঃ) বারা ইবন আযিব (রাঃ) বলেছেন, নাবী (সাঃ) আমাদেরকে সাতটি কাজ করতে বলেছেন এবং সাতটি কাজ করতে নিষেধ করেছেন। তিনি আমাদেরকে রোগীর সেবাযত্ন করা, জানাযায় অংশগ্রহণ করা, হাঁচি দিলে তার জবাব দেয়া, কসম পুরা করায় সহযোগিতা করা, মজলুমকে সাহায্য করা, সালামের বিসত্মার করা এবং কেউ দাওয়াত দিলে তা কবূল করা- এইসব করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। এ ছাড়া তিনি আমাদের নিষেধ করেছেন স্বর্ণের আংটি পরতে, রূপার পাত্র ব্যবহার করতে, ঘোড়ার পিঠের ওপরে রেশমী গদি ব্যবহার করতে এবং ‘কাস্সিয়া’ বা পাতলা রেশমী কাপড় এবং দ্বীবাজ ব্যবহার করতে। আবূ আওয়ানা এবং শায়বানী আশ্আস সূত্রে সালামের বিসত্মারের কথা সমর্থন করে বর্ণনা করেন।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ বিয়ে-শাদী হাদিস নাম্বারঃ ৪৭৯৭

অক্টো. 182013
 

মুসাদ্দাদ (রহঃ) হযরত আবূ মূসা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, নাবী (সাঃ) বলেছেন, বন্দীদেরকে মুক্তি দাও, দাওয়াত কবূল কর এবং রোগীদের সেবা কর।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ বিয়ে-শাদী হাদিস নাম্বারঃ ৪৭৯৬

অক্টো. 132013
 

বিশর ইবন মুহাম্মদ (রহঃ) আবূ হুরারয়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল (সাঃ) বলেছেন, সত ক্রীতদাসের সাওয়াব দ্বিগুণ। আবূ হুরায়রা (রাঃ) বলেন, যার হাতে আমার প্রাণ, তাঁর শপথ করে বলছি, আল্লাহর পথে জিহাদ, হাজ্জ (হজ্জ) এবং আমার মায়ের সেবার মত উত্তম কাজ যদি না থাকত তাহলে ক্রীতদাসরূপে মৃত্যুবরণ করাই আমি পছন্দ করতাম।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ গোলাম আযাদ করা হাদিস নাম্বারঃ ২৩৮০