নভে. 152013
 

ইয়া‘কূব ইবনু ইবরাহীম (রহঃ)… শা‘বি (রহঃ) থেকে বর্ণিত যে, মুগীরা ইবনু শু‘বা (রহঃ)-এর কাতিব (একান্ত সচিব) বলেছেন, মু‘আবিয়া (রাঃ) মুগীরা ইবনু ইবনু শু‘বা (রাঃ)-এর কাছে লিখে পাঠালেন যে, নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) -এর কাছ থেকে আপনি যা শুনেছেন তার কিছু আমাকে লিখে জানোান। তিনি তাঁর কাছে লিখলেন, আমি রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) -কে বলতে শুনেছি, আল্লাহ তোমাদের তিনটি কাজ অপছন্দ করেন, (১) অনর্থক কথাবার্তা, (২) সম্পদ নষ্ট করা এবং (৩) অত্যধিক সাওয়াল করা।

গ্রন্থঃ সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ যাকাত হাদিস নাম্বারঃ ১৩৯১

নভে. 122013
 

আব্দুল্লাহ ইবন ইউসুফ (রহঃ) আয়িশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেনঃ জিবরাঈল আমাকে ডেকে বললেনঃ আল্লাহ তাঁআলা তো আপনার সম্প্রদায়ের লোকদের উক্তি শুনেছেন এবং তারা আপনার সাথে যে প্রতি উত্তর করেছে তাও তিনি শুনেছেন।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ তাওহীদ প্রসঙ্গ হাদিস নাম্বারঃ ৬৮৮৫

নভে. 102013
 

হাসান ইবন সাববাহ (রহঃ) আনাস ইবন মালিক (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ রাসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেনঃ লোকেরা পরস্পরে প্রশ্ন করতে থাকবে যে, ইনি (আল্লাহ) সবকিছুই স্রষ্টা, তবে আল্লাহকে কে সৃষ্টি করলেন?

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ কুরআন ও সুন্নাহকে দৃঢ়ভাবে ধারন হাদিস নাম্বারঃ ৬৭৯৮

নভে. 102013
 

মুহাম্মদ ইবন আব্দুর রহীম (রহঃ) আনাস ইবন মালিক (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ এক ব্যাক্তি জিজ্ঞাসা করল, হে আল্লাহর নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) ! কে আমার পিতা? তিনি বললেনঃ তোমার পিতা অমুক। তারপর এই আয়াত অবতীর্ন হল (মহান আল্লাহর বানী) হে মুমিনরা! তোমরা সেসব বিষয়ে প্রশ্ন করবে না, ষা প্রকাশিত হলে তোমরা দুঃখিত হবে (৫-১০১)।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ কুরআন ও সুন্নাহকে দৃঢ়ভাবে ধারন হাদিস নাম্বারঃ ৬৭৯৭

নভে. 102013
 

ইসহাক ওয়াসেতী (রহঃ) তারীফ আবূ তামীমা (রহঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেনঃ আমি সাফওয়ান (রহঃ), জুনদাব (রাঃ) ও তাঁর সাথীদের কাছে ছিলাম। তখন তিনি তাদের উপদেশ দিচ্ছিলেন। তারা জিজ্ঞাসা করল, আপনি কি রাসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) থেকে কোন কথা শুনেছেন? উত্তরে তিনি বললেনঃ আমি তাকে বলতে শুনেছি যে, যারা মানুষকে শোনাবার জন্য কোন কাজ করে, কিয়ামতের দিন আল্লাহ তার এ কথা শুনিয়ে দিবেন। আর যারা অন্যের প্রতি কঠোর ব্যবহার করে কিয়ামতের দিন আল্লাহ তা’আলা তার প্রতি কঠোর ব্যবহার করবেন। তাঁরা পূনরায় বলল, আমাদেরকে কিছু উপদেশ দিন। তিনি বললেনঃ মানুষের দেহের যে অংশ প্রথম দৃর্শময় হবে, তা হল তার পেট। সুতরাং যে ব্যাক্তি সামর্থ্য রাখে যে একমাত্র পবিত্র (হালাল) খাদ্য ছাড়া আর কিছু সে আহার করবে না, সে যেন তাই করতে চেষ্টা করে। আর যে ব্যাক্তি সামর্থ্য রাখে যে এক আজলা পরিমাণ রক্তপাত ঘটিয়ে তার ও জান্নাতের মাঝে প্রতিবন্দকতা সৃষ্টি করবে না, সে যেন অবশ্যই তা করে। হিমাম বুখারী (রহঃ)-এর ছাত্র ফেরাবরী) বলেনঃ আমি আবূ আব্দুল্লাহ (রাঃ) (ইমাম বুখারী)-কে জিজ্ঞাসা করলাম, নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) থেকে আমি শুনেছি- এ কথা কি হাদাব বলেছিলেন? তিনি বললেনঃ হ্যা, জুনদাবই।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ আহকাম হাদিস নাম্বারঃ ৬৬৬৭

নভে. 092013
 

ইয়াহইয়া ইবন বুকায়র (রহঃ) আবূ হুরায়রা (রাঃ) বলেন, নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেনঃ তোমাদের কেউ যদি কসম করে এবং তার কসমে বলে লাত ও উযযার কসম, তা হলে সে যেন লা ইলাহা ইলাল্লাহ বলে, আর যে কেউ তার বন্ধুকে বলে: এসো আমি তোমার সাথে জুয়া খেলবো। সে যেন সাদাকা করে।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ অনুমতি চাওয়া হাদিস নাম্বারঃ ৫৮৬৩

নভে. 092013
 

উসমান (রহঃ) আব্দুল্লাহ (রাঃ) থেকে বর্নিত। নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেন: যখন কোথাও তোমরা তিনজন থাকো, তখন একজনকে বাদ দিয়ে দু’জনে কানে-কানে কথা বলবে না। এতে তার মনে দুঃখ হবে। তোমরা পরস্পর মিশে গেলে তবে তা করাতে দোষ নেই।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ অনুমতি চাওয়া হাদিস নাম্বারঃ ৫৮৫৩

নভে. 092013
 

আব্দুল্লাহ ইবন ইউসুফ ও ইসমাঈল (রহঃ) আব্দুল্লাহ (রাঃ) থেকে বর্নিত যে, রাসুলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছেনঃ যদি কোথাও তিনজন লোক থাকে তবে তৃতীয় জনকে বাদ দিয়ে দু-জনে মিলে চুপি চুপি কথা বলবে না।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ অনুমতি চাওয়া হাদিস নাম্বারঃ ৫৮৫১

নভে. 092013
 

ইসহাক (রহঃ) আনাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) যখন সালাম বলতেন, তখন তিনবার সালাম দিতেন এবং যখন কথা বলতেন তখন তা তিনবার উল্লেখ করতেন।

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ অনুমতি চাওয়া হাদিস নাম্বারঃ ৫৮১০

নভে. 082013
 

মূসাদ্দাদ (রহঃ) আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি একদা নাবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) জিজ্ঞাসা করলেন, আপনি কি আবূ তালিবকে কিছু উপকার করতে পেরেছেন?

সহীহ বুখারি অধ্যায়ঃ কোমল হওয়া হাদিস নাম্বারঃ ৬১২৫